বিশ্বের শীর্ষস্থানীয় স্মার্টফোন ব্র্যান্ড অপো দেশের বাজারে নিয়ে এলো নতুন স্মার্টফোন এফ১৫। গত সপ্তাহে ইন্টারন্যাশনাল কনভেনশন সিটিতে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে স্মার্টফোনটি দেশের বাজারে আনার ঘোষণা দেওয়া হয়।

ফোনটির ৪৮ মেগাপিক্সেলের আল্ট্রা ওয়াইড অ্যাঙ্গেল ম্যাক্রো ক্যামেরা বাম্পে রয়েছে চারটি ক্যামেরার সমন্বয়। নজরকাড়া ডিজাইনের পাশাপাশি এটি পেশাদার ফটোগ্রাফিতে নতুন মাত্রা যোগ করবে।

অনুষ্ঠানে অপো বাংলাদেশ এইডি’র ব্যবস্থাপনা পরিচালক মিঃ ডেমন ইয়াং বলেন, "বর্তমান সময়ে তরুণ প্রজন্মের প্রতিদিনের জীবন ও কাজকর্ম স্মার্টফোন নির্ভর। হালের সব ধরনের ফিচারে ভরা এফ সিরিজের আগের ফোনগুলো তাদের মাঝে ব্যাপক জনপ্রিয়তা লাভ করেছে। তাদের চাহিদার কথা বিবেচনা করেই আমরা এফ সিরিজের নতুন ফোন এনেছি। তাদের স্মার্টফোন ব্যবহারের অভিজ্ঞতাকে আরো সমৃদ্ধ করতে বেশ কিছু নতুন ফিচার আনা হয়েছে ফোনটিতে। ফোনটির অনন্য ক্যামেরার মাধ্যমে তারা এখন আরো প্রাণবন্ত ছবি তুলতে পারবেন।"

পেশাদার ফটোগ্রাফি এখন হাতের মুঠোয়

মোবাইল ফটোগ্রাফি অভিজ্ঞতাকে আরো উন্নত করতে সবসময় কাজ করে যাচ্ছে অপো। নজরকাড়া ডিজাইনের পাশাপাশি অপো এফ১৫ এ যুক্ত করা হয়েছে আল্ট্রা ওয়াইড অ্যাঙ্গেল ম্যাক্রো কোয়াড ক্যামেরা সেটআপ যা কাছাকাছি দামে যেকোনো প্রতিদ্বন্দ্বী ফোনের ক্যামেরার থেকে অনেকখানি এগিয়ে। ফোর-ইন-ওয়ান-পিক্সেল কম্বিনেশন প্রযুক্তি থাকায় ৪৮ মেগাপিক্সেলের এই ক্যামেরার মাধ্যমে আরো স্পষ্ট ও ঝকঝকে ছবি তোলা যাবে।

ওয়াইড অ্যাঙ্গেল মোডে সরাসরি অটোফোকাসের মাধ্যমে মাত্র ৩ সেন্টিমিটারের দূরত্বে ম্যাক্রো অপশন ব্যবহার করা যাবে। শুধু তাই নয়, দ্রুতগতির শাটার স্পিডে তোলা যাবে কাছাকাছি কোনো বস্তুর ছবি যেমন- ফুল, পোকামাকড় এমনকি শিশিরের ছবিও।

এছাড়াও নাইট পোর্ট্রেট মোডের মাধ্যমে অন্ধকারেও অনায়াসে চমৎকার পোর্ট্রেট ফোটোগ্রাফি করা যাবে। পোর্ট্রেট এইচডিআর-এর কল্যাণে সরাসরি সূর্যের আলো বিপরীতেও স্বয়ংক্রিয়ভাবে একাধিক ছবি আর্টিফিসিয়াল ইন্টেলিজেন্সের মাধ্যমে একীভূত করে অনেক বেশি ঝকঝকে পোর্টেট তুলতে সক্ষম।

নজরকাড়া ডিজাইন এবং কার্যক্ষমতা

এক হাতে অনায়াসে ব্যবহারের জন্য ডিজাইন করা অপো এফ১৫ মুহূর্তেই সকলের নজরে পড়বে। ২০:৯ স্ক্রিন রেশিওর হ্যান্ডসেটটি এফ সিরিজের পূর্ববর্তী ফোন এফ১১ থেকে ৫% পাতলা এবং ৯% হালকা।

পাতলা স্মার্ট ডিজাইনের ফোনটি পকেটে কিছুতেই ভারী মনে হবে না। মিনিম্যালিস্টিক ডিজাইনে চারটি রিয়ার ক্যামেরা এফ১৫ এর পেছনে একপাশে বসানো হয়েছে এবং সামঞ্জস্য রেখে পাশেই রয়েছে একটি শক্তিশালী ফ্ল্যাশ। লেন্সে যেন কোনো দাগ না পড়ে সে লক্ষ্যে ক্যামেরা বাম্পের চারিদিকে একটি আলংকারিক রিং বসানো হয়েছে। সহজ কথায়, অপো এফ১৫ একটি স্টাইলিশ, আলট্রা-পোর্টেবল এবং পারফেক্ট অন-দ্য-গো স্মার্টফোন।

ইন-ডিসপ্লে ফিঙ্গারপ্রিন্ট আনলক ৩.০ থাকায় ব্যবহারকারীরা মাত্র ০.৩২ সেকেন্ডে ডিভাইসটি আনলক করতে পারবেন, যা আগের ফোনগুলোর তুলনায় ৪৫% দ্রুততর। এটি শুধু বিদ্যুৎগতিতে আনলক করতেই সক্ষম নয়, হার্ডওয়্যার ভিত্তিক অ্যান্টি-ফোর্জিং প্রযুক্তির মাধ্যমে নিরাপত্তাও বৃদ্ধি করবে।

৮ গিগাবাইটের বিশাল র‍্যাম এবং ১২৮ গিগাবাইট রমের ফোনটি দ্রুততার সাথে ব্যবহার করা যাবে, ভাবতে হবে না স্টোরেজ নিয়েও। ভোক ফ্ল্যাশ চার্জ ৩.০-এর মাধ্যমে মাত্র ৫ মিনিটে ১০% চার্জ করা যাবে ফোনটি, আর ৩০ মিনিটে ৫০% চার্জ করা যাবে যা ভোক ২.০ থেকে চেয়ে ২৬% দ্রুততর।

শক্তিশালী সফটওয়্যার এবং হার্ডওয়্যার সম্মন্বয়ে জমবে বিনোদন ও গেমিং

অপো এফ১৫ ফোনের ৯০.৭% স্ক্রিন টু বডি রেশিওর ফুলএইচডি প্লাস অ্যামোলেড ডিসপ্লে গেমিং ও বিনোদনে নতুন মাত্রা যোগ করবে। ওয়াইডিভাইন এল১ সনদ পাওয়া অনন্য ২৪০০ পিক্সেল বাই ১০৮০ পিক্সেল রেজ্যুলেশনের হাই ডেফিনেশন ফুল এইচডি স্ক্রিনে ইউটিউব, নেটফ্লিক্স বা অ্যামাজন প্রাইমে ভিডিও দেখা যাবে।

ফ্রেম-বুস্ট এবং টাচ-বুস্টের কারণে গেমিং অভিজ্ঞতা হবে আরো প্রাণবন্ত। ফ্রেম-বুস্টের মাধ্যমে গেমিংয়ের সবথেকে বিরক্তিকর ল্যাগিং দূর হবে। টাচ বুস্ট ডিসপ্লেতে টাচ রেসপন্স আরো বাড়িয়ে গেমারদের আরো ভালোভাবে কন্ট্রোলের সুবিধা দিবে।
দারুণ এবং দরকারি সব ফিচারের অপো এফ১৫ দেশের বাজারে পাওয়া যাবে মাত্র ২৬,৯৯০ টাকায়। লাইটনিং ব্ল্যাক এবং ইউনিকর্ন হোয়াইট- এ দুই রঙে এটি পাওয়া যাবে। স্মার্টফোনটির প্রি-বুকিং দেওয়া যাবে আজ (৪ মার্চ) থেকে যা চলবে ১১ মার্চ পর্যন্ত এবং বাজারে পাওয়া যাবে ১২ মার্চ থেকে। এছাড়া রবি-এয়ারটেলের বর্তমান ও নতুন গ্রাহকরা স্মার্টফোনটির সাথে পাবেন ১০ জিবি ফ্রি ইন্টারনেট বান্ডেল অফার। এর পাশাপাশি প্রতিবার ইন্টারনেট বান্ডেল ক্রয়ে পাওয়া যাবে বোনাস যা চলবে পরবর্তী ঘোষণা না দেওয়া পর্যন্ত।

বন্ধুদের জানিয়ে দেন

আপনার মতামত জানান

Please enter your comment!
Please enter your name here